Home / জাতীয় / ক্ষুদ্র জাতি গোষ্ঠীর ভাষাগুলো বিপন্নের পথে

ক্ষুদ্র জাতি গোষ্ঠীর ভাষাগুলো বিপন্নের পথে

পৃথিবীর অন্যতম প্রধান শ্রুতিমধুর ভাষা হলো বাংলা। বাংলা ভাষাভাষি মানুষের দেশ হিসেবে পরিচিত বাংলাদেশ, কিন্তু বহুজাতির বহুভাষার বৈচিত্র্যও বিদ্যমান। প্রায় পঞ্চাশটি, সংখ্যায় ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী চল্লিশটি পৃথক ভাষায় কথা বলে। ষোল কোটির দেশে আটানব্বই ভাগ মানুষ বাংলা ব্যবহার করলেও সমতল ও পাহাড়ী এলাকায় বিভিন্ন ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর ত্রিশ লাখ মানুষ পৃথক চল্লিশটি ভাষা ব্যবহার করে। এধরনের ৪১টি ভাষার মধ্যে ১৪টি ভাষা নানা কারণে বিপন্নের পথে।

আবির্ভাবের শুরুতে মানুষ চিত্রের মাধ্যমে কোন কিছুর প্রতীকধর্মী ছবি এঁকে মনের ভাব জানাতো। এরপর ধ্বনি থেকে লিপি, তারপর অক্ষরলিপির মাধ্যমে মনের ভাব প্রকাশ করে। ব্রাহ্মি লিপির নানা বিবর্তনের ধারাবাহকতায় বাংলা লিপি আজকের জায়গায় এসেছে।

পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি এবং বান্দরবানসহ সিলেট, গাজীপুর, মধুপুরের বনাঞ্চলে সংখ্যায় ক্ষুদ্র প্রায় ৩০ লক্ষ জাতিগোষ্ঠীর বাস। তারা দেশের মোট জনসংখ্যার দুই শতাংশ। এই জনগোষ্ঠীগুলো ৪০টি পৃথক ভাষায় কথা বলে। সেগুলোর কয়েকটি ভাষায় দূর অতীতে সাহিত্য রচিত হলেও এখন হারিয়ে যেতে বসেছে।

মাতৃভাষার মাধ্যমে শিক্ষার ব্যবস্থা না থাকা, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের অভাব ও জীবিকার প্রয়োজনে নিজের আদি নিবাস ত্যাগ করে শহরে বসবাসসহ নানা কারণে চাক, কোডা, কোল, কন্দ, খুমিসহ প্রায় ১৪টি ভাষা বিপন্ন হবার পথে।

Check Also

মসজিদে হামলাকারী জঙ্গির সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করুন

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে জঙ্গি হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ইসলামী ছাত্র খেলাফত বাংলাদেশ। রবিবার সকালে জাতীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by