Home / সারাদেশ / বেতন তুললেন ১৩ লাখ টাকা হাসপাতালে না গেলেও

বেতন তুললেন ১৩ লাখ টাকা হাসপাতালে না গেলেও

তিন দিনের ছুটি নিয়ে তিন বছর ধরে উধাও। এর মধ্যে গত ছয় মাস ধরে বেতন-ভাতা তোলেননি। তার আগের আড়াই বছর ঠিকই জনগণের করের টাকা নিজের আয়েশে ব্যবহার করেছেন। অঙ্কটা সব মিলিয়ে অন্তত ১৩ লাখ বলে নিশ্চিত করেছেন তার সহকর্মীরাই।

তিনি ইমার্জেন্সি মেডিকেল অফিসার। নাম আরিফুর রহমান। কর্মস্থল ময়মনসিংহের গফরগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। কিন্তু এমন কোনো ইমার্জেন্সি তৈরি হয়নি, যা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসতে পারে। ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে তিন দিনের ছুটিতে গিয়েছিলেন। এর পরের তিন বছর ধরে তার খোঁজ নেই।

সহকর্মীরা জানাচ্ছেন, আড়াই বছর আরিফুরের হিসাবে প্রতি মাসে বেতন-ভাতা, উৎসব ভাতা, বিনোদন ভাতাসহ এই সময়ে ঢুকেছে অন্তত ১৩ লাখ টাকা।

অর্থাৎ জনগণের সেবা না করে তাদের করের এই বিপুল পরিমাণ টাকা পকেটে পুরেছেন এই চিকিৎসক। এ নিয়ে তার যেমন কোনো ব্যাখ্যা নেই, তেমনি চিকিৎসা প্রশাসনের কেউ বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চান না। একজন অনুপস্থিত মানুষের ব্যাংক হিসাবে কীভাবে টাকা গেল, এমন প্রশ্নে চুপ থাকা বা অস্বীকার করা বা ফোন না ধরাকেই কৌশল হিসেবে নিচ্ছেন চিকিৎসক আরিফুরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

চিকিৎসক আরিফুরের ফোন নম্বরটিও বন্ধ। ফলে তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সারা দেশে সরকারি চিকিৎসকদের হাসপাতালে অনুপস্থিতি নিয়ে জনক্ষোভ রয়েছে। সরকারের উচ্চ পর্যায়েও এ নিয়ে আছে আপত্তি। সম্প্রতি দুর্নীতি দমন কমিশন ১১টি হাসপাতালে গিয়ে ৪০ শতাংশ চিকিৎসককে কর্মস্থলে পায়নি। ঢাকার বাইরে এই হার ৬০ শতাংশ।

দুদকের অভিযানের পর এই ১১টি সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসকদের উপস্থিতি বাড়লেও যেসব হাসপাতালে দুদক যায়নি, সেগুলোর অবস্থা এমনই। দিনের পর দিন বহু চিকিৎসক কর্মস্থলে যান না। কিন্তু বেতন তোলার ক্ষেত্রে ভুল করেন না কেউ।

Check Also

ময়লা সরিষায় হচ্ছে সুরেশ তেল, ওজনে কম দিচ্ছে মদিনা

নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ময়লাযুক্ত সরিষায় তৈরি হচ্ছে নামকরা সুরেশ সরিষার তেল। অন্যদিকে ওজনে কম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by