Breaking News
Home / অপরাধ-আদালত / মাদরাসা ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণ

মাদরাসা ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণ

টাঙ্গাইলের সখীপুরে দশম শ্রেণির এক মাদরাসা ছাত্রীকে প্রায় ২০ দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় রোববার রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে অভিযুক্ত বাসের থানায় মামলা করা হয়েছে।

মামলার পরই রাতেই অভিযুক্ত মজিবর রহমানকে (৪২) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের ধলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ আজ সোমবার সকালে গ্রেফতার মজিবুরকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠিয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মজিবুর রহমান ওই মাদরাসা ছাত্রীকে মাদরাসায় যাওয়ার পথে কুপ্রস্তাব দিতো। ছাত্রাটি কুপ্রস্তাবে রাজি হয়নি। এ অবস্থায় ২৪ ডিসেম্বর ওই ছাত্রী উপজেলার কালিয়া বাজারে কেনাকাটার জন্য যায়। এর পর থেকেই ওই ছাত্রীকে আর পাওয়া যায়নি।

মামলায় আরো উল্লেখ করা হয়, ওই মাদরাসা ছাত্রীকে মজিবর অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তাকে আটকে রেখে একাধীকবার জোর পূর্বক ধর্ষণ করা হয়।

গত এক সপ্তাহ আগে মাদরাসায় যাওয়া-আসার পথে অভিযুক্ত ব্যক্তি কৌশলে তুলে নিয়ে যায়। আটকে রেখে নিয়মিত ধর্ষণ করে।

Check Also

সিলেটে একই কায়দায় ছয় খুন!

এক বা একাধিক ব্যক্তি এসে বাসা-বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর পাওয়া যায় লাশ! সিলেটে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by