Home / সারাদেশ / পাসপোর্ট তৈরিতে ঝাড়ুদারকেও দিতে হয় টাকা

পাসপোর্ট তৈরিতে ঝাড়ুদারকেও দিতে হয় টাকা

মেহেরপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস; এখানে পাসপোর্ট তৈরিতে ঝাড়ুদারকেও দিতে হয় টাকা। অফিসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা-অফিস সহকারী-পিয়ন-ঝাড়ুদার—সবাই যেন একসূত্রে গাথা। সবাইকে খুশি করতেই পারলেই মেলে পাসপোর্ট।

সম্প্রতি এ অভিযোগ উঠেছে মেহেরপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসটির কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে।

এই অফিসের পরিচালক থেকে শুরু করে ঝাড়ুদার—সবাই আছেন এ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে। পাসপোর্ট-প্রতি ৮০০ থেকে এক হাজার ৫০০ পর্যন্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

প্রতিনিয়ত সাধারণ মানুষ পাসপোর্ট করতে এসে নানাভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছেন।

সকাল ১০টা থেকে মেহেরপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্টের কাগজপত্র জমা নেওয়া শুরু হয়। চলে দুপুর ১টা পর্ষন্ত। অভিযোগ রয়েছে—এ সময়ের মধ্য বেশির ভাগ মানুষের কাগজপত্রের ভুল ধরে জমা নেওয়া হয় না। বাইরে অপেক্ষমাণ দালাল ও অফিসের কর্মচারীদের মুঠোফোনে যোগাযোগ করে টাকায় মেলে এসব ভুলের সমাধান। সব ভুল ঠিক করে বিকেল তিনটার পর জমা নেওয়া হয় কাগজপত্র। আর এ টাকার ভাগ ঝাড়ুদার থেকে শুরু করে পরিচালক পর্যন্ত যায়।

এই প্রতিবেদক নতুন পাসপোর্ট তৈরির নাম করে অফিসের ঝাড়ুদার বিপ্লবের মুঠোফোনে যোগাযোগ শুরু করেন। একপর্যায়ে এক হাজার টাকার বিনিময়ে দ্রুততম সময়ে পাসপোর্ট তৈরি করে দেবে বলে চুক্তি হয়।

Check Also

ময়লা সরিষায় হচ্ছে সুরেশ তেল, ওজনে কম দিচ্ছে মদিনা

নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ময়লাযুক্ত সরিষায় তৈরি হচ্ছে নামকরা সুরেশ সরিষার তেল। অন্যদিকে ওজনে কম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Website Design, Developed & Hosted by